লক্ষ্মীপুরের মানুষ লক্ষ্মী হয়ে ভালো থাকুক : শেখ হাসিনা

ধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আমি খুশি হলাম, লক্ষ্মীপুরে কোনো করোনা আক্রান্ত রোগী পাওয়া যায়নি। সব তো ঢাকায় এসে বসে আছে বোধহয়। তবে সাবধানে থাকতে হবে। কারণ এপ্রিল মাসটা সম্পর্কে অনেক রকম কথা শোনা যায়। সারাবিশ্বে যেভাবে করোনা রোগী বৃদ্ধি পেয়েছে, বৃদ্ধি পাওয়ার একটা প্রবণতা আছে। তাতে আমাদের সময়টা এসে গেছে এপ্রিল মাসটা। এই সময়টা আমাদের খুব সাবধানে থাকতে হবে। লক্ষ্মীপুরের মানুষ লক্ষ্মী হয়ে ভালো থাকুক। এই দোয়া করি।

মঙ্গলবার (০৭ এপ্রিল) দুপুরে চট্টগ্রাম বিভাগের জেলাগুলোর সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সের শেষ মুহূর্তে লক্ষ্মীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নুর উদ্দিন চৌধুরী নয়নের বক্তব্যের পর প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন। প্রধানমন্ত্রীর ভিডিও কনফারেন্সে জেলা প্রশাসকের কার্যালয় থেকে যুক্ত হন ওই আওয়ামী লীগ নেতা।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ভিডিও কনফারেন্সে লক্ষ্মীপুর জেলা প্রশাসক অঞ্জন চন্দ্র পাল জানিয়েছেন, এই জেলায় এখন পর্যন্ত ২৫ জন ব্যক্তির করোনা সন্দেহে নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। ঢাকা ও চট্টগ্রামে পরীক্ষার জন্য নমুনাগুলো পাঠানো হয়। ইতোমধ্যে ১২টির নমুনা পাওয়া গেছে। সবগুলোই নেগেটিভ। এখানে এখন পর্যন্ত কোনো করোনা রোগী শনাক্ত হয়নি।

ডিসি আরও বলেন, লক্ষ্মীপুরের হাসপাতালগুলোতে আইসোলেশনের ওয়ার্ডের মাধ্যমে ১০০টি বেড প্রস্তুত রাখা হয়েছে। সরকারি বরাদ্দের পাশাপাশি স্থানীয় রাজনৈতিক নেতারা শ্রমজীবীদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছেন। জনসমাগম ও সঙ্গরোধ নিশ্চিত করতে সেনাবাহিনীসহ আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী কাজ করছে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. শাহজাহান, লক্ষ্মীপুরে দায়িত্বপ্রাপ্ত সেনাবাহিনীর লে. কর্নেল জিয়াউর রহমান, জেলা পুলিশ সুপার ড. এএইচএম কামরুজ্জামান, সিভিল সার্জন ডা. আবদুল গাফ্ফার ও সদর হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার (আরএমও) আনোয়ার হোসেন প্রমুখ।