৬ মাসে এডিপি বাস্তবায়ন ৫৬ হাজার ৭১২ কোটি: এম এ মান্নান

চলতি অর্থ-বছরের ৬ মাসে বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির (এডিপি) বাস্তবায়ন হার ২৬.৩৬ শতাংশ। টাকার অঙ্কে যা ৫৬ হাজার ৭১২ কোটি ৫৭ লাখ টাকা। পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের বাস্তবায়ন পরিবীক্ষণ ও মূল্যায়ন (আইএমই) বিভাগের হিসাবে এ তথ্য উঠে এসেছে। তাতে দেখা যায়, জুলাই থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত এ বিভাগের এডিপি বাস্তবায়ন হার কমেছে।

মঙ্গলবার রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে এনইসি সম্মেলন কক্ষে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভা শেষে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান এসব কথা জানান।

সূত্র জানায়, (২০১৯-২০)-এর জন্য উন্নয়ন বাজেটে ২ লাখ ২ হাজার ৭২১ কোটি টাকার অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। আগামী অর্থবছরের (২০১৯-২০) জন্য উন্নয়ন বাজেটের প্রধান অংশ তথা বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির (এডিপি) খসড়া তৈরি করে পরিকল্পনা কমিশন। স্বায়ত্তশাসিত সংস্থার নিজস্ব অর্থায়ন ছাড়া এবার এডিপির আকার হবে ২ লাখ ২ হাজার ৭২১ কোটি টাকা।
এর মধ্যে সরকারের নিজস্ব তহবিল থেকে ১ লাখ ৩০ হাজার ৯২১ কোটি টাকা ও বৈদেশিক সহায়তা থেকে ৭১ হাজার ৮০০ কোটি টাকা ব্যয়ের লক্ষ্য নির্ধারণ করা হয়েছে। নতুন এডিপিতে পদ্মা সেতু ও পদ্মা সেতুতে রেল সংযোগসহ সর্বোচ্চ বরাদ্দ দেওয়া হচ্ছে পরিবহন খাতে।

আগের অর্থবছরে প্রথম ছয় মাসে ব্যয় হয়েছিল ৪৯ হাজার ৬৪৮ কোটি ৮০ লাখ টাকা। বাস্তবায়ন হার ছিল ২৭.৪৫ শতাংশ।

পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, বাস্তবায়ন হার কমলেও তা নিয়ে ভীত নই কারণ টাকার অঙ্কে এডিপি ব্যয় বেড়েছে। ব্যয়টাই প্রধান। ইঞ্জিনিয়ার যখন হিসেব পাঠায় ফিজিক্যাল মাপ জোক কম হতে পারে কোনো কোনো খানে, কোনো জায়গায় একটা পিলার কম হতে পারে। কিন্তু টাকার হিসেবে বেশি ব্যয় করেছি আমরা।